ব্যাংকে টাকার ঘাটতি নেই, গুজবে কান দেবেন না


প্রকাশের সময় : ডিসেম্বর ১৫, ২০২২, ৮:৪৪ অপরাহ্ন / ৭০
ব্যাংকে টাকার ঘাটতি নেই, গুজবে কান দেবেন না

মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে জাতির উদ্দেশে ভাষণ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বৃহস্পতিবার (১৫ ডিসেম্বর) সন্ধ্যা ৭টা ৩০ মিনিটে তিনি ভাষণ শুরু করেন।৭টা ৫০ মিনিটে ভাষণ শেষ হয়।

ভাষণের শুরুতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও মহান মুক্তিযুদ্ধে বীর শহীদদের কথা স্মরণ করেন প্রধানমন্ত্রী। একই সঙ্গে দেশবাসীকে মহান বিজয় দিবসের শুভেচ্ছা জানান তিনি।

বিটিভিসহ বিভিন্ন টেলিভিশন-বেতার ও গণমাধ্যমে ভাষণটি সরাসরি সম্প্রচারিত হয়।

প্রধানমন্ত্রী তার ভাষণে বলেন, ‘ব্যাংকে টাকার কোনো ঘাটতি নেই, গুজবে কান দেবেন না।ঘরে টাকা রেখে বিপদ ডেকে আনবেন না। ব্যাংকে টাকা নেই বলে গুজব ছড়িয়ে আতঙ্ক সৃষ্টি করা হচ্ছে।’

দেশে বিনিয়োগ, রেমিটেন্স প্রবাহ এবং আমদানি-রফতানি পরিস্থিতি সবকিছু স্বাভাবিক রয়েছে বলে জানান তিনি।

বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ প্রসঙ্গে শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমাদের বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ নিয়ে অনেকেই নানা মনগড়া মন্তব্য করছেন। তিন মাসের আমদানি খরচ মেটানোর মতো রিজার্ভ থাকলেই চলে। বর্তমানে আমাদের পাঁচ মাসের আমদানি ব্যয় মেটানোর মতো বৈদেশিক মুদ্রা মজুদ আছে।’

রিজার্ভ হ্রাস পাওয়ার বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘করোনা ভাইরাস মহামারির সময় সব ধরনের ভারী যন্ত্রপাতি আমদানি, বিদেশ ভ্রমণ এবং অন্যান্য পণ্য আমদানি অনেকটা বন্ধ ছিল। সে সময় আমাদের রিজার্ভ বৃদ্ধি পেয়ে ৪৮ বিলিয়ন ডলারে উন্নীত হয়। এই বিপুল পরিমাণ অর্থ অলস অবস্থায় না রেখে সেখান থেকে কিছু পরিমাণ অর্থ দিয়ে আমরা একটা বিশেষ তহবিল গঠন করেছি। সেই তহবিলের অর্থ দ্বারা কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হচ্ছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘করোনার কারণে সরকারি সহায়তায় দেশের প্রায় সাড়ে সাত কোটি মানুষ উপকৃত হয়েছে।দেশের মানুষকে বিনামূল্যে করোনার টিকা দেওয়া হয়েছে। ঘরে ঘরে পৌঁছে দেওয়া হয়েছে খাদ্য সামগ্রী।’

‘নানান প্রতিকূলতা অতিক্রম করে দেশ যখন এগিয়ে যাচ্ছে তখন স্বাধীনতা ও উন্নয়ন বিরোধীরা দেশে আরাজক পরিস্থিতি সৃষ্টির অপচেষ্টা চালাচ্ছে।’

প্রধানমন্ত্রী তার ভাষণে বিশ্বেবাজারে জ্বালানি ও পণ্যমূল্য কমলে দেশেও সমন্বয়ের অঙ্গীকার করেছেন। সেই সঙ্গে এটাও জানিয়েছেন, আন্তর্জাতিক বাজারে পণ্যমূল্য কমে আসছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘বৈশ্বিক কারণে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের দাম বৃদ্ধি পেয়েছিল। তা এখন অনেকটা স্বাভাবিক হতে শুরু করেছে। মূল্যস্ফীতিও হ্রাস পাচ্ছে। আমি আপনাদের আশ্বস্ত করতে চাই, বিশ্ব বাজারে জ্বালানি তেলসহ কোনো জিনিসের দাম কমার সঙ্গে সঙ্গে আমরা তা সমন্বয় করব।’

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সরকার জনগণের সরকার। মানুষের কল্যাণের জন্যই কাজ করাই আমাদের মূল লক্ষ্য। মানুষের ভোগান্তি হোক, কষ্ট হোক- তা আমরা কখনই চাই না।’

কৃষি উৎপাদন বাড়ানোর তাগিদও দেন প্রধানমন্ত্রী। বলেন, ‘মাটিতে বীজ ফেললেই যেখানে গাছ জন্মে, ফল হয়, সেখানে বাইরে থেকে কৃষিপণ্য আমদানি করতে হবে কেন? আমি আপনাদের অনুরোধ করছি, এক ইঞ্চি জমিও পতিত রাখবেন না।’

নামাজের সময় সূচী

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৩:৫০ পূর্বাহ্ণ
  • ১১:৫৯ পূর্বাহ্ণ
  • ৪:৩৪ অপরাহ্ণ
  • ৬:৪২ অপরাহ্ণ
  • ৮:০৬ অপরাহ্ণ
  • ৫:১২ পূর্বাহ্ণ