স্বামী বিদেশে হলেও স্ত্রী সাত মাসের অন্তঃসত্তা


প্রকাশের সময় : ফেব্রুয়ারী ১০, ২০২৪, ৫:৫৬ অপরাহ্ন / ৬৯
স্বামী বিদেশে হলেও স্ত্রী সাত মাসের অন্তঃসত্তা

মোঃ আব্দুল হান্নান,নাসিরনগর,ব্রাহ্মণবাড়িয়া: ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগরে স্বামী তিন বছর যাবৎ প্রবাসে থাকলেও স্ত্রী সাত মাসের অন্তঃসত্তা হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।এ বিষয়ে এলাকায় ব্যপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।সরেজমিন এলাকায় গিয়ে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যাক্তিগর্ব সহ উভয় পক্ষের লোকজনের সাথে কথা বলে পাওয়া গেছে এমনই তথ্য।

জানা গেছে ২০১৯ সালের ১৮ ডিসেম্ভর জেলার নাসিরনগর উপজেলার পূর্বভাগ ইউনিয়নের ভূবন গ্রামের গেদু মিয়ার মেয়ে আছমা আক্তারের সাথে প্রতিবেশী আলী মিয়ার ছেলে মোঃ আজিজ মিয়ার আড়াই লক্ষ টাকার কাবিন মুলে বিয়ে হয়।
বিয়ের পর আছমা ও আজিজের ঘরে একটি কন্যা সন্তানের জন্ম হয়।

বিগত তিন বছর পূর্বে জীবিকার সন্ধানে আজিজ চলে যায় প্রবাসে।প্রায় একমাস পূর্বে ছুটি নিয়ে আসে দেশে।বাড়িতে ফেরার পর বৌকে দেখে আজিজের সন্দেহ হয়।পরে উভয় পক্ষের লোকজনকে দিয়ে পাঠানো হয় ডাক্তারের কাছে।
ডাক্তার পরীক্ষা নিরিক্ষা করে সাত মাসের অন্তঃসত্তা বলে ঘোষনা দেন।এর পর আজিজ তার বৌকে পিত্রালয়ে রেখে চলে যান আবারো প্রবাসে।

সরেজমিন এলাকায় গিয়ে কথা হয় আছমার স্বামী আজিজের মা, বাবা,ভাই,বোন,আত্মীয় স্বজন আর আছমা,তার মা রফিজা বেগম,বাবা গেদু মিয়ার সাথে।আছমার বাবা মা জানান,তাদের মেয়ে স্বামীর অর্বতমানে পাশের বাড়ির ট্রাক চালক একটা ছেলের সাথে দুর্ঘটনা করে ফেলেছে। এ জন্য তারা তাদের মেয়ে আছমাকে তাদের বাড়িতেই এনে রেখে দিয়ে।এ বিষয়ে স্বামী আজিজের ও তার পরিবারের কারো বিরোদ্ধে কোন অভিযোগ নেই তাদের।

আছমা জানান একদিন তার শ্বশুর শ্বাশুরী বাড়িতে ছিল না।রাতে প্রতিবেশী ট্রাক চালক নুরুদ্দিনের ছেলে মোঃ মনির মিয়া হাতে ধারালো ছুড়ি নিয়ে আমার ঘরে প্রবেশ করে আমার ধর্ষনের চেষ্টা চালায়।তার কথা রাজি না হলে আমার মেয়েকে গলা কেটে ফেলে দেয়ার ভয় দেথায়।তাই মেয়ের জীবণ বাঁচাতে আমি মনিরের কথা রাজি হই।পরে ভয়ে ও লজ্জায় আমি কাউকে কিছু বলিনি।

এলাকার সর্দার মোঃ দুর্বাজ মিয়া ও সামসুদ্দিন মিয়া সহ আরো অনেকেই বলেন,আমরা বিষয়টি স্থানীয় ভাবে মীমাংসা করার জন্য কয়েক দফা বসেছি কিন্তু সমাধান করতে পারিনি।

আছমার মা বাবা বলেন আমরা বিচারের আশায় মনিরের বিরোদ্ধে আদালতে মামলা করেছি।মামলা কপি কোথায় জানতে চাইলে,আছমার মা বলেন আমার ভাইয়ের কাছে চাপড়তলা।কাউকে না জানাতে আর কপি দিতে আমার ভাই নিষেধ করেছে।