চীনে আবারও লাফিয়ে বাড়ছে সংক্রমণ


প্রকাশের সময় : নভেম্বর ১১, ২০২২, ৯:৫৯ অপরাহ্ন / ৩৯৯
চীনে আবারও লাফিয়ে বাড়ছে সংক্রমণ

ফের কোভিড দাপট শুরু চীনে! বেইজিংয়ে আবারও কোভিড ১৯ ভাইরাসের সংক্রমণ বেড়ে চলেছে। নতুন এই ঢেউয়ে শহরের একাধিক পার্ক বন্ধের সিদ্ধান্ত এবং একাধিক নিয়মও চালু হয়েছে। বেইজিংয়ের ‘ম্যানুফ্যাকচারিং হাব’ নামে খ্যাত গুয়াংঝাউ এবং পশ্চিমের শহর চোংগকিংয়ে ৫০ লক্ষ মানুষ ঘরবন্দি হয়ে রয়েছে লকডাউনের কারণে।

শুক্রবার ১০ হাজার ৭১৯ জন নতুন করে সংক্রমিত হয়েছে এই ভাইরাসে। চিন্তার বিষয় হল এদের সকলেই উপসর্গহীন, কিন্তু পরীক্ষা করতেই দেখা যায় এরা সকলেই কোভিড পজিটিভ। বেইজিং শহরেই ২ কোটি ১০ লক্ষের করোনা পরীক্ষা হয়ে গিয়েছে। প্রতিদিনই শতাধিক মানুষ আক্রান্ত হচ্ছে এই ভাইরাসের আক্রমণে।

চীনে যেন ফের লকডাউন জীবন ফিরে এসেছে৷ দেশের এই পরিস্থিতিতে অনেক স্কুলগুলিই ফের অনলাইন ক্লাস নিতে শুরু করেছে। দোকান, রেস্তোরাঁগুলিতে কর্মীরা কোয়ারেন্টাইনে চলে যাওয়াতে বেশিরভাগই বন্ধ। সোশাল মিডিয়ায় সম্প্রতি যে ভিডিও পোস্ট করা হয়েছে সেখানে দেখা যাচ্ছে, পুলিশ এবং স্বাস্থ্য কর্মীদের সঙ্গে ঝগড়ায় জড়িয়ে পড়ছে সাধারণ মানুষ৷ অনেক জায়গায় দেখানো হচ্ছে বিক্ষোভও।

চীনা জনগণ প্রশ্ন তুলেছে শি জিনপিংয়ের সরকারের ‘জিরো কোভিড নীতি’ নিয়ে। তাদের দাবি এই নীতির ফলে চীনা অর্থনীতি তো বিপর্যস্ত হয়েছে, পাশাপাশি গৃহহীনও হয়েছে অনেকে। যদিও নেতারা আশ্বস্ত করেছেন পরিস্থিতি স্বাভাবিক ও নিয়ন্ত্রণে আনার। ওয়াকিবহাল মহলের মতে, চীনের এই জিরো কোভিড নীতিতে সংক্রমণ কমলেও অর্থনীতিতে ভয়ঙ্কর প্রভাব পড়েছে। শিক্ষা এবং শিল্পও রেকর্ড ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এই পরিস্থিতিতে চীনা কমিউনিস্ট পার্টি প্রধান শি জিনপিং এবং পলিটব্যুরো সদস্যরা কোন পথে এগিয়ে চলেন সেদিকেই তাকিয়ে বিশ্বের সবচেয়ে জনবহুল দেশ।-জি নিউজ