কলম্বিয়ায় প্রায় ১০ হাজার লোক অবরুদ্ধ 


প্রকাশের সময় : ডিসেম্বর ১৮, ২০২২, ৯:৫৫ পূর্বাহ্ন / ২৭২
কলম্বিয়ায় প্রায় ১০ হাজার লোক অবরুদ্ধ 

কলম্বিয়ার বিদ্রোহীরা সশস্ত্র হামলা শুরু করায় কার্যত দেশটির উত্তর-পশ্চিম অঞ্চলের হাজার হাজার মানুষ অবরুদ্ধ হয়ে পড়েছে। শুক্রবার কর্তৃপক্ষ এ কথা জানিয়েছে।

ন্যায়পাল অফিস জানায়, সরকারের সঙ্গে চলমান শান্তি আলোচনার মধ্যে ‘ইএলএন’ গেরিলাদের হামলার কারণে কলম্বিয়ার উত্তর-পশ্চিম চোকো অঞ্চলের প্রায় ৯ হাজার ৮০০ লোক অবরুদ্ধ অবস্থায় রয়েছে।
চকো বিভাগের বিদ্রোহীদের হামলার ঘোষণার পর ‘ইস্তমিনা, মেডিও সান জুয়ান, সিপি এবং নোভিটা পৌরসভার অন্তত ৯ হাজার ৮০০ জন লোক’ ‘অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্দী’ অবস্থায় রয়েছে। ন্যায়পালের কার্যালয় একটি বিবৃতিতে ‘চলাচল ওপর বিধিনিষেধসহ’ ‘দৈনিক কার্যক্রম’ ‘মুদি এবং খাদ্য পরিবহনের’ পাশাপাশি স্বাস্থ্য পরিষেবাগুলোতে যাওয়ার ব্যাপারে বিধিনিষেধ আরোপ করেছে।

বুধবার প্রকাশিত একটি নথিতে, ন্যাশনাল লিবারেশন আর্মি (ইএলএন) ওই অঞ্চলে চলাচল এবং সক্রিয় কার্যক্রম নিষিদ্ধ করেছে। তারা সরকারী বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে সোমবার ‘আধাসামরিক বাহিনীর’ হাতে তরুণ ‘সান্তিয়াগো ক্যাসেরেস’কে হত্যার অভিযোগ করেছে।

কলম্বিয়ায় বিভিন্ন বামপন্থী গেরিলা, ডানপন্থী আধাসামরিক বাহিনী এবং মাদক পাচারকারীদের মধ্যে অর্ধশতাব্দীরও বেশি সময় ধরে সশস্ত্র সংঘাত চলছে।

ইএলএন হলো কলম্বিয়ায় পরিচালিত সর্বশেষ স্বীকৃত বিদ্রোহী গোষ্ঠী, যদিও ফার্স (এফএআরসি) ভিন্নমতাবলম্বীরা যারা ২০১৬ শান্তি চুক্তিতে স্বাক্ষর করতে অস্বীকার করেছিল তারা সক্রিয় রয়েছে।

নভেম্বরে দলগুলো প্রেসিডেন্ট আইভ এন ডুকের প্রাক্তন সরকারের অধীন স্থগিত শান্তি প্রক্রিয়া পুনরায় শুরু করে।

দেশটিতে ১৯৬৪ সাল থেকে সশস্ত্র সংঘাত চলছে, ইএলএনের প্রায় ২ হাজার ৫০০ যোদ্ধা এবং সহযোগীদের একটি বিস্তৃত নেটওয়ার্ক রয়েছে।